‘লবঙ্গ’তে জমকালো ফাণ্ডন সন্ধ্যা

ভোরের আলো রিপোর্ট: কানাডার টরেন্টোতে জমকালো আয়োজনে ‘পহেলা ফাল্গুন’ উদযাপিত হল। ডেনফোর্থ এলাকার লবঙ্গ রেস্টুেরেস্টে ‘ফাল্গুন সন্ধ্যা’টি অনুষ্ঠিত হয়। এজন্য গত ১২ ই ফেব্রুয়ারি রাতে রেস্টুরেন্টটি বাসন্তী ও বাংলা সিনেমার আদলে সাজানো হয়েছিল। অনুষ্ঠানটির আয়োজক ছিলেন বাঙ্গালি কমিউনিটির পরিচিত মুখ ও শান্ত মারিয়াম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক নার্গিস সুলতানা। অনুষ্ঠানস্থলের প্রবেশ মুখে সেলফি বুথে ছিল পুরো বাঙ্গালিয়ানার ছাপ। শিশু চিত্রশিল্পী ইনায়া আহমেদ-এর তৈরি করা সেলফি বুথের সামনে রাখা ছিল গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী কেরোসিন তেলসহ হ্যারিকেন। এছাড়া ছিল রঙচাঙা কেটলিসহ নানা কিছু। চার ঘন্টার অনুষ্ঠানে বাঙ্গালি জীবনের ঐতিহ্য পিঠা-পুলি, পায়েস, পান-সুপারি, ণ্ডড়ের চা ও জিলাপী খেয়ে কানাডিয়ান-বাংলাদেশিরা অন্য রকম স্বাদ উপভোগ করেন। ডিনারের মেন্যুতে ছিল মুন্সিয়ানার ছাপ। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পর্বে অংশ নেন কাজী ফয়সাল হক, ইফতেখার আহমেদ, ভ্যালেন্টিনো রোজারিও, শাপলা শালুক, আনিসা আনোয়ার, শফিক আহমেদ, মুসতাক রুশো, নাহিদ নাসরীন নয়ন, সাবরিনা আফরোজ, শফিকুল সৌরভ, মো. আনোয়ার সাদাত, মোর্শেদা মুক্তা, সাকেরা হামিদ, ইফফাত শারমীন ও মাইনুল বাশার। অনুষ্ঠানের আয়োজক নার্গিস সুলতানা জানান, আমরা বাঙ্গালি। তাই আমাদের জীবনে বাঙ্গালিত্বের ছাপ থাকবে এটাই স্বাভাবিক।
প্রানের টানে পহেলা ফাল্গুন বা পহেলা বৈশাখের মতো অনুষ্ঠান করি। সবাই অনুষ্ঠান উপভোগ করলেই আমি স্বার্থক।