টরন্টোর শহীদ মিনার লুটেরামুক্ত হওয়ায় বিজয় র‌্যালি ও শহীদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন

ডঃ মঞ্জুরে খোদা ,প্রায় দুই মাস লুটেরা বিরোধী মঞ্চ, কানাডা’র নেতৃত্বে এক অভাবনীয় ভার্চ্যুয়াল সামাজিক আন্দোলনের মাধ্যমে কানাডার টরন্টোতে শহীদ নির্মাণ কমিটিতে থাকা দুইজন অভিযুক্ত ও বিতর্কিত ব্যক্তিদের বাদ দেয়া হয়েছে। উনাদের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের বিভিন্ন ব্যাংক থেকে অর্থ আত্মসাত ও কানাডায় পাচারের অভিযোগ আছে।

উল্লেখ্য গত ১০ জানুয়ারী ২০২১, শুক্রবার, আইএমএলডি’র এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় তাদের কমিটি পূর্ণগঠন করা হয়েছে এবং পূর্ণগঠিত কমিটিতে লুটেরা বলে অভিযুক্ত ও বিতর্কিত কোন ব্যক্তি নেই। পূর্বের ৩৭ সদস্যের কমিটির স্থলে নতুন করে ৭ সদস্যের একটি বোর্ড গঠন করা হয়, যাদের কাজ হবে টরন্টো সিটি অফিসকে নব নির্মিত শহীদ মিনারটি হস্তান্তর করা।

আইএমএলডি’র পূর্ণগঠিত কমিটির ঘোষণায় লুটেরা বিরোধী মঞ্চ, কানাডা মনে করে এটা লুটেরা বিরোধী ধারাবাহিক সামাজিক আন্দোলনের নৈতিক বিজয়। এই উপলক্ষে, মঞ্চের পক্ষ থেকে আজ ১৪ মার্চ ২০২১, রবিবার, বিকেল এক বিজয় কার র‍্যালী ও নব নির্মিত শহীদ মিনারে সকল শহীদের প্রতি সম্মান প্রদর্শণের কর্মসূচী পালিত হয়। করোনাকালে এটাই ছিল টরন্টো শহরে প্রবাসী বাঙালিদের প্রথম শীতল হাওয়ায় প্রকাশ্য কর্মসূচী। পরিপূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনেই এই কর্মসূচী পালিত হয়।

বিজয় র‍্যালী শহরের বিভিন্ন সড়ক পদক্ষিন করে শহীদ মিনার স্থল ডেনটনিয়া পার্কে এসে শেষ হয়। সেখানে মঞ্চের কর্মী-সংগঠকরা দাড়িয়ে “লুটেরা রুখো, স্বদেশ বাঁচাও স্লোগানে- মুষ্ঠিবদ্ধ হাত উত্তলন করে শপথে উচ্চারণ করে- লুটেরা বিরোধী সামাজিক আন্দোলন অব্যাহত রাখার অঙ্গীকার পূর্ণব্যক্ত করেন। একই সাথে কানাডায় চিহ্নিত লুটেরাদের বর্জন এবং যারা তাদের সহযোগীতা করবে তাদেরও সামাজিকভাবে বয়কট করার ঘোষণা দেয়া হয়। মঞ্চের পক্ষ থেকে এই আন্দোলনে বিভিন্নভাবে অংশগ্রহন ও সহযোগিতা করছেন সে সকল ভাইবোনদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানানো হয়।

ধন্যবাদসহ,
লুটেরা বিরোধী মঞ্চ, কানাডা।