সৌদি আরবের ব্যাংক নোটে ‘স্বাধীন কাশ্মীর’, বিক্ষুব্ধ ভারত

সৌদি আরবের নতুন ২০ রিয়ালের ব্যাংক নোটে কাশ্মীরকে পৃথক দেশ হিসেবে দেখানোয় ক্ষোভ জানিয়েছে ভারত।

বিদেশি প্রচার মাধ্যম ও একটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এর বিতর্কিত প্রচারণার কথা উল্লেখ করে ভারত অভিযোগ করেছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

নয়াদিল্লিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, জি-২০ ব্লকের দেশগুলোর জন্য সৌদি আরবের প্রেসিডেন্সির স্মারক হিসেবে প্রকাশ করা নতুন ২০ রিয়াল নোট নিয়ে তারা ‘গুরুতর উদ্বেগ’ জানিয়েছে।

ভারত, পাকিস্তান ও চীনের মধ্যে কাশ্মীর ভূখণ্ড থাকলেও, ওই নোটে বিশ্বের মানচিত্রে এটিকে একটি পৃথক দেশ হিসেবে দেখানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, তারা সৌদি কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে ‘সংশোধনমূলক ব্যবস্থা’ নিতে বলেছে। তবে, সৌদি কর্তৃপক্ষ এখনও এ বিষয়ে প্রকাশ্যে কোনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি।

গত তিন দশকের বিদ্রোহে ভারত-অধিকৃত কাশ্মীরে অন্তত কয়েক হাজার মানুষ মারা গেছে এবং ২০১৯ সালের ৫ আগস্টের পর থেকে ভারত সরকার কাশ্মীরের স্বায়ত্বশাসন উঠিয়ে নেওয়ার পর থেকে সেখানে কারফিউ জারি ও যোগাযোগে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

কাশ্মীরের একটি অংশ লাদাখকে চীনের অন্তর্গত দেখানোর কারণে, ভারত সরকার চলতি সপ্তাহে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারকে জিও-ট্যাগিং ডেটার বিষয়ে সতর্ক করে।

তিন বছর আগে ভারত নতুন আইন করে দেশের ভুল মানচিত্র তৈরিকে ফৌজদারি আইন হিসেবে গণ্য করে, যার শাস্তি তিন বছরের কারাদণ্ড।

২০১৫ সালে কাশ্মীরকে বাদ দিয়ে ভারতের মানচিত্র দেখানোয় প্রায় এক সপ্তাহের জন্য আল-জাজিরার সম্প্রচার নিষিদ্ধ রাখে নয়াদিল্লি।

এ ছাড়া, কাশ্মীরকে বিতর্কিত অঞ্চল হিসেবে দেখানোর জন্য ভারত দ্য ইকোনমিস্ট পত্রিকাকে সেন্সর করে।