করোনা জয়ের পথে পান্না আবেদীন

মন্ট্রিয়ল ব্যুরো : বিশিষ্ট সমাজসেবক, ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ এম জয়নাল আবেদীন জামিলের স্ত্রী পান্না আবেদীন দুই সপ্তাহ আগে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মন্ট্রিয়লের রয়েল ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে দীর্ঘ দশ দিন চিকিৎসাধীন ছিলেন। অবশেষে তিনি সুস্থবোধ করায় হাসপাতাল থেকে বাসায় স্থানান্তর হয়েছেন।

এ কঠিন সময়ে এম জয়নাল আবেদীন জামিল চার সন্তানকে নিয়ে এক কঠিন সময় পার করেন উৎকন্ঠা নিয়ে। দেশে-বিদেশে তার বন্ধু, আত্মীয়-স্বজনসহ সুহৃদরা সহযোগিতা ও ভালোবাসায় সিক্ত করেন এবং সাহস যুগিয়েছেন। আবেগপ্রবণ হয়ে এম জয়নাল আবেদীন জামিল ভোরের আলোকে বলেন, মহান আল্লাহ তালার দরবারে লক্ষ কোটি শুকরিয়া ও  আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। এই কঠিন সম​য়টা আমি কিভাবে অতিবাহিত করেছি তা ভাষায় ব্যক্ত করার মত ন​য়। আমার এই কঠিন পরীক্ষার সম​য় আমাকে আপনারা সহযোগিতা ও সাহস যুগিয়েছেন তার জন্য আপনাদের কাছে আমি চির কৃতজ্ঞ। আমার স্ত্রী করোনা আক্রান্ত হওয়ার সংবাদ অবগত হওয়ার পর থেকে বিশ্ব প্রবাসী শরিফগঞ্জ উন্নয়ন পরিষদ এর সকল সদস্য, গোলাপগঞ্জ এসোসিয়েশন অব মন্ট্রিয়ল, সিলেট জেলা সমিত অব মন্টিয়ল. কুশিয়ারা যুব কল্যান পরিষদ, ফরেন এলায়েন্স অব  গোলাপগঞ্জ সহ দেশ বিদেশের ঐতিহ্যবাহী সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের আমার বন্ধু-বান্ধব, আমার জন্মভূমির সকল আপনজন, ভাই বোন,চাচা ভাতিজা সহ সকল সম্পর্কের সকল ধর্মের, কল বর্ণের সর্বদলীয় মানুষজন আমাদের জন্য দোয়া করেছেন সেজন্য কৃতজ্ঞ।


কানাডা, বাংলাদেশ ছাড়াও প্রবাসীদের পরিচালনাধীন বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের সাংবাদিক, সম্পাদক, প্রকাশকবৃন্দ সব সময় খবর নিয়েছেন। মন্ট্রিয়লের অনেক সহৃদ বাসায় ইফতার ও সেহরির জন্য খাবার পাঠিয়ে আমাকে করেছেন আবেগাপ্লুত। যা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। মানুষের দুঃসময়ে কিভাবে আপনজন হয়ে পাশে থাকতে হয় তা আপনারা দেখিয়ে দিলেন। মানুষ মানুষের জন্য তা বারবার প্রমাণ করলেন।  মি আমার অন্তরের অন্তস্থল থেকে আপনাদের সহানুভূতি ও আন্তরিকতা  কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করছি।
সর্বোপরি, বিশ্বব্যাপী যত মানুষ এখনো অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে আছেন  অথবা ঘরে দুশ্চিন্তায় আছেন মহান আল্লাহ তা’আলা  সবাইকে সুস্থ করে দিন এবং আমাদের সবাইকে নিরাপদ ও সুস্থ রাখুন এই প্রার্থনা করছি।