ডাটা সেন্টারের বিকাশ ও IT-তে কর্মসংস্থান: মন্ট্রিয়লের রিয়েল এস্টেটে নতুন মাত্রা

লিখেছেন রিয়েল্টর শিহাব উদ্দিন

দামের দৃষ্টিকোন থেকে “ওভারহিটিং মার্কেট” এর কারণে মন্ট্রিয়ল আইলেন্ড এবং এর আশেপাশের অঞ্চলগুলিতে বাড়ীর লিস্টিং হ্রাস পাচ্ছে এবং দাম ক্রমাগত বাড়ছে| ইতিবাচক অর্থনৈতিক সূচক, স্ট্যাবল চাকরির বাজার , সুদের স্থির ও নিম্ন হার এবং দ্রুততার সাথে ইমিগ্রেন্টদের সংখ্যা বৃদ্ধি গ্রেটার মন্ট্রিয়লে বাড়ীর বাজারের বর্তমান অবস্থার কারণ। ইমিগ্রেন্ট বৃদ্ধির বিষয়টা একটু গভীর। এটা কেবল সংখ্যা দিয়ে বিবেচনা করা যাবে না। এর সাথে রয়েছে দৃশ্যপট ও অবকাঠামোগত কিছু বিষয়।

উত্তর আমেরিকার ডেটা সেন্টার এবং ক্লাউড সার্ভিসগুলির মূল কেন্দ্র হয়ে উঠছে গ্রেটার মন্ট্রিয়ল। সার্ভার কোলেকশন তথা সিস্টেম চালু রাখার জন্য মন্ট্রিয়লের জলবায়ু খুবই অনুকূল| প্রাকৃতিক কুলিং ব্যবহার করেই এখানে ডাটা সেন্টার উপযোগী প্রয়োজনীয় তাপমাত্রা বহাল রাখা যায়। ফলে বছরের উল্লেখযোগ্য একটা সময় এখানে কুলিংয়ের জন্য টাকা খরচ করতে হয়না| তাছাড়া জল-বিদ্যুতের কল্যানে কুইবেকের মেগাওয়াট প্রতি বিদ্যুতের কম দাম ডাটা সেন্টারে বিনিযোগকারীদের জন্য বাড়তি আকর্ষণ|

মন্ট্রিয়ল এমনিতেই ডাটা সেন্টারগুলির সার্ভার হোস্টিংয়ের একটি আদর্শ স্থান হিসেবে পরিচিত ছিল| ২০১৯-এ অনুষ্টিত Gartner কনফারেন্সে “Data Center Location of the Year” নির্বাচিত হয়েছে মন্ট্রিয়েল| স্ক্যান্ডিনেভিয়ান অঞ্চলগুলিকে ছাপিয়ে মন্ট্রিয়লের এই অর্জন অনেক বড় অর্থ বহন করে| আমাজন ইতোমধ্যে মন্ট্রিয়লে ডাটা সেন্টার স্থাপন করেছে| গুগলও মন্ট্রিয়লে তাদের অফিস খুলতে যাচ্ছে| iWeb, Cologix, রুটস্ কমিউনিকেশনসহ বিদ্যমান ডাটা সেন্টারগুলি তাদের কোলোকেশনের ব্যাপ্তি বৃদ্ধি শুরু করেছে অনেক আগে থেকে।

মন্ট্রিয়লে পড়াশুনা শেষ করে ভাষাগত সমস্যায় আগে অনেকেই মন্ট্রিয়ল ত্যাগ করতেন প্রফেশনাল চাকরি বাকরি না পাওয়ার কারণে। ডাটা সেন্টার গুলির এক্সপানশন ও তথ্য প্রযুক্তিতে নতুন নতুন চাকরি সৃষ্টি হওয়াতে এখন চাকরির জন্য খুব বেশী লোককে মন্ট্রিয়ল ছেড়ে যেতে হচ্ছে না। আর তথ্য প্রযুক্তির চাকরির আরেকটা সুবিধা হচ্ছে এখানে ফ্রেন্স জানার খুব একটা দরকার হয়না । Statista সূত্রমতে বিশ্বের ২৫.২% মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করে ইংরেজীতে যেখানে ফরাসি ভাষায় বিবৃত হয় মাত্র ৩.২%।   ফলে খুব স্বাভাবিক কারণেই তথ্য প্রযুক্তিতে কর্মরত জনবল ফরাসি ভাষা ব্যতিরেকেই কাজ করে যেতে পারছেন। বস্তুত: প্রচার ও স্বীকৃতি পরে আসলেও উপলব্দি এবং এর বাস্তবায়ন শুরু হয়েছে অনেক আগেই। ফলে কানাডার অভ্যন্তরে মন্ট্রিয়লের গুরত্ব ক্রমাগত বাড়ছে যা দীর্ঘদিন ছিল অনেকটা নিম্নমুখী। খুব স্বাভাবিকভাবেই এর প্রভাব রিয়েল এস্টেটে মার্কেটে পড়ছে।

পরপর ৫২ মাস ধরে কুইবেক রিয়েল এস্টেট বোর্ড সেন্ট্রিসের ইনভেন্টরিতে লিস্টিংয়ের সংখ্যা কমে চলেছে। জানুয়ারী মাসে সেন্ট্রিসে লিস্টিং সংখ্যা ছিল ১৫,০৭৩ যা গত বছরের এই সময়ের তুলনায় ২৮% কম। অপরদিকে, একই সময়ে আবাসিক ট্রান্সেকশনের সংখ্যা ছিল ৩,৪২৯ যা গত বছরের এই সময়ের তুলনায় ১৬% বেশী। Vaudreuil-Soulanges ছাড়া ৬টি মন্ট্রিয়ল মেট্রোপলিটন অঞ্চলের পাঁচটিতেই বিক্রির পরিমান ব্যাপক ছিল। সর্বোচ্চ(৩৭%) বিক্রি হয়েছে লাভালে, এরপরই(৩৩%) ছিল Saint-Jean-sur-Richelieu এর স্থান। বিক্রি বৃদ্ধিটা যতটা ইতিবাচক, নতুন লিস্টিং লিস্টিংয়ের সংখ্যাটা ঠিক ততটাই নেতিবাচক। বিক্রয় এবং নতুন লিস্টিংয়ের এই বিপরীত অনুপাতের কারণে বাজারে বিরাজ করছে মারাত্মক ভারসাম্যহীনতা। বিক্রেতারা এর সুফল ভোগ করলেও উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠায় আছেন ক্রয়ে আগ্রহীরা।

সিটির বিদ্যমান পরিকল্পনা অনুযায়ী আবাসিক ইউনিট নির্মানের পরিকল্পনা এগুলে এই সংকট কাঠবেনা। এর জন্য প্রয়োজন দ্রুত জরুরী ভিত্তিতে এই সামারের আগেই অন্তত হাজার ত্রিশেক নতুন বাড়ী নির্মাণ।

 

লেখক : প্রকৌশলী শিহাব উদ্দিন, 

রিয়েল এস্টেট ব্রোকার , 514 715 6944