এবার ট্রুডোকেও একহাত নিলেন গ্রেটা

কানাডায় জলবায়ু সমাবেশে যোগ দেওয়ার পর সে দেশের প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবেও সাক্ষাৎ করেছেন গ্রেটা থানবার্গ। পরে স্থানীয় আদিবাসী নেতাদের সঙ্গে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রুডোকেও একহাত নিয়েছেন জলবায়ু আন্দোলনের প্রতীকে রূপান্তরিত হওয়া ১৬ বছর বয়সী এই শিশু। বলেছেন, কার্বন নিঃসরণ রোধে তার ভূমিকাও পর্যাপ্ত নয়।

প্রথম মেয়াদে কানাডার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার সময় ট্রুডো বৈশ্বিক উষ্ণতাবিরোধী লড়াইয়ের অগ্রনায়ক হিসেবে নিজেকে সামনে আনার চেষ্টা করেন। তবে তার সেই ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হয় ট্রান্স মাউন্টেন ওয়েল পাইপলাইন সম্প্রসারণ প্রকল্পে সমর্থন দেওয়ার কারণে।

ট্রুডোর সঙ্গে বৈঠক শেষে গ্রেটা সাংবাদিকদের বলেন, বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির জন্য দায়ী কার্বন নিঃসরণ রোধে কানাডার প্রধানমন্ত্রীও পর্যাপ্ত ভূমিকা রাখছেন না। তিনি বলেন, ‘তিনিও (ট্রুডো) তেমন কিছু করছেন না। বিশ্বের সব রাজনীতিবিদের জন্যই আমার বার্তা এক। বর্তমানের সবচেয়ে প্রজ্ঞাবান বিজ্ঞানীদের কথা শুধু শুনুন আর ব্যবস্থা নিন।’

গ্রেটা থানবার্গের সঙ্গে বৈঠকের পর দুইশো কোটি গাছ লাগানোর প্রতিশ্রুতি দেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, আমি তার (গ্রেটা থানবার্গ) সঙ্গে পুরোপুরি একমত। আমাদের আরও ভূমিকা রাখতে হবে।

জাতিসংঘ ভাষণে জলবায়ু পরিবর্তন রোধে বিশ্বনেতাদের দায়িত্বহীন ভূমিকার সমালোচনার পর বিশ্বব্যাপী জলবায়ু সমাবেশের অংশ হিসেবে কানাডার মন্ট্রিলে প্রায় পাঁচ লাখ মানুষের এক বিক্ষোভে নেতৃত্ব দিয়েছেন গ্রেটা। ট্রুডোও ছিলেন সেই মিছিলে।