টরন্টো বাংলাদেশ কনস্যুলেট- দুর্নীতির দায়ে কাউন্সিলর স্ট্যান্ড রিলিজড, বউ পিটিয়ে প্রথম সচিব প্রত্যাহার হলেন

ভোরের আলো রিপোর্ট: দুর্নীতি, অনিয়ম ও ক্ষমতার অপব্যবহারের
অভিযোগে টরন্টো বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কাউন্সেলর (স্থানীয়) মানসুরীন
খান চৌধুরীকে স্ট্যান্ড রিলিজড করা হয়েছে। গত ২১ শে এপ্রিল পররাষ্ট্র
মন্ত্রণালয়ের পরিচালক (সংস্থাপন) মোহাম্মদ আল আলেমুল ইমাম বাংলাদেশ
কনস্যুলেট জেনারেল অফিস, টরন্টো এর কাউন্সেলর (স্থানীয়) মানসুরীন
খান চৌধুরীকে স্ট্যান্ড রিলিজড সংক্রান্ত একটি আদেশ জারি করেন। এদিকে
বউ পেটানোর দায়ে পররাষ্ট্র ক্যাডারের কর্মকর্তা ও কানাডায় বাংলাদেশ
কনস্যুলেট জেনারেল অফিস, টরন্টো- এর সাবেক প্রথম সচিব মনোয়ার
মোকাররমকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তিনি বর্তমানে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের
পরিচালক (এমআরপি এন্ড কনস্যুলার) হিসেবে কর্মরত আছেন। সংশ্লিষ্ট
একাধিক সূত্রে জানা গেছে, সাড়ে তিন বছর আগে টরন্টো কনস্যুলেটে
কাউন্সেলর (স্থানীয়) পদে নিয়োগ পান মানসুরীন খান চৌধুরী। এ পদে
তিনি আপীল বিভাগের বিচারপতি ওবায়দুল হাসান ও প্রধানমন্ত্রীর
কাযালয়ের সাবেক সচিব সাজ্জাদুল হাসান এর তদবিরে নিয়োগ পান বলে
জনশ্রুতি রয়েছে। বিসিএস অডিট ক্যাডারের কর্মকর্তা হয়েও ক্ষমতার জোরে
এ পদে নিয়োগ পেতে তাকে বেগ পেতে হয়নি। বরং গেল বছরের মার্চে
তাকে টরন্টো থেকে বদলি করা হয়। কিন্তু ক্ষমতার জোরে এক বছর ধরে
অবৈধভাবে তিনি টরন্টো কনস্যুলেট অফিসে চাকুরি করেন। তবে তার
হাঁড়ির খবর ঢাকা জেনে গেছে। ক্ষমতার অপব্যবহারের জন্য তাকে স্ট্যান্ড
রিলিজড করা হয়েছে।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের স্ট্যান্ড রিলিজড সংক্রান্ত আদেশে বলা হয়েছে, ২০২১
সালের ২১ শে মার্চ একটি অফিস আদেশের মাধ্যমে আপনাকে মন্ত্রণালয়ে
প্রত্যাবর্তনের জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হয়, যা আপনি প্রতিপালন
করেননি। এমন অবস্থায়, আদিষ্ট হয়ে আপনাকে আগামী ৩০ শে জুন এর

মধ্যে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল অফিস- টরন্টোতে আপনার বর্তমান
দায়িত্বভার ত্যাগ করে সদর দপ্তর, ঢাকায় যোগদানের জন নির্দেশনা প্রদান
করা যাচ্ছে। আপনি ৩০ শে জুন তারিখের মধ্যে আপনি বাংলাদেশ
কনস্যুলেট জেনারেল অফিস, টরেন্টোতে দায়িত্বভার ত্যাগ না করলে ৩০ শে
জুন অপরাহ্নে আপনি বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল অফিস, টরন্টো থেকে
স্ট্যান্ড রিলিজড হিসেবে গণ্য হবেন এবং ১ লা জুলাই থেকে আপনি
বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল, টরন্টোতে কূটনৈতিক পদে পদায়িত থাকবেন
না এবং বৈদেশিক ভাতা ও আপ্যায়ন ভাতা, বিধি অনুযায়ি সরকারি
বাসস্থান, বিধি অনুযায়ি সরকারি ব্যয়ে চিকিৎসা সুবিধাদি এবং বিধি
অনুযায়ি সন্তানাদির শিক্ষা ভাতা পাবেন না।
সংশ্লিস্ট একাধিক সূত্রে জানা গেছে, গেল বছরের শেষ দিকে বাংলাদেশ

কনস্যুলেট জেনারেল অফিস, টরন্টো- এর সাবেক প্রথম সচিব মো.
মনোয়ার মোকাররম তার স্ত্রীকে পিটিয়ে পুলিশের কাছে গ্রেপ্তার হন।
পুলিশের কাছে গ্রেপ্তারের পর মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান। তখনই পররাষ্ট্র
মন্ত্রণালয় তড়িঘড়ি করে মো. মনোয়ার মোকাররমকে প্রত্যাহার করে ঢাকায়
চলে যাওয়ার আদেশ দেয়। তবে মনোয়ারের স্ত্রী টরেন্টোতে তার স্বামীর
বিরুদ্ধে পার্সোনাল এবিউজ এর মামলা দায়ের করেন। মামলাটি বর্তমানে
বিচারাধীন আছে। পাশাপাশি মনোয়ারের স্ত্রী ও সন্তান শরনার্থী হিসেবে
আশ্রয় চেয়ে কানাডা সরকারের কাছে আবেদন করেছেন। মনোয়ারের স্ত্রীর
শরনার্থী হিসেবে আবেদনটি এখনও শুনানী হয়নি। তবে স্বামীর বিরুদ্ধে
দায়ের করা মামলার শুনানী চলছে।