নিউইয়র্কে প্রবাসী বড় ভাইয়ের ছুরিকাঘাতে ছোট ভাই খুন

মায়ের সাথে বড় ভাইয়ের উত্তপ্ত বাক-বিতন্ডার সমাধানে গিয়ে ছোট ভাই প্রাণ হারিয়েছে। নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটস এলাকায় শুক্রবার অপরাহ্নে বাংলাদেশী পরিবারের এই মর্মান্তিক হত্যাযজ্ঞে হতবাক গোটা কমিউনিটি। পুলিশ জানায়, ২৪ বছর বয়েসী ভাইয়ের উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে প্রচন্ড রক্তক্ষরণে মারা গেছে শ্যন সরকার (২১)। 

বড় ভাইকে (২৪) পুলিশ অকুস্থল থেকে গ্রেফতার করেছে। তবে শনিবার রাত পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ দায়ের করা হয়নি বলে কর্তৃপক্ষ তার নাম প্রকাশ করেনি। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, সিরাজগঞ্জ জেলা সদরের সন্তান আব্দুস সালাম সরকার ৪৫ বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছেন। কিন্তু গ্রীণকার্ড পাননি এখন পর্যন্ত। স্ত্রী এবং নিউইয়র্কে জন্মগ্রহণকারি ৩ পুত্র নিয়ে ৪৪১৫-৭৪ স্ট্রিটে অবস্থিত এপার্টমেন্টে বাস করেন আব্দুস সালাম (৬৭)। 

প্রতিবেশীরা জানান, সালামের মেঝ ছেলে শ্যন সরকার হাই স্কুল পাশ করতে পারেনি। মাদকাশক্ত হয়ে পড়েছে। মাঝেমধ্যেই সে মাতাল হয়ে বাসায় ফিরেই মা-কে অকথ্যভাষায় গালাগালি ছাড়াও মারধর করে আসছে। ৭ জানুয়ারি শুক্রবার বেলা ২টা ২০ মিনিটে শ্যন সরকারের বখে যাওয়া নিয়ে মায়ের সাথে তুমুল ঝগড়া শুরু করেন জ্যেষ্ঠ পুত্র। তা দেখে শ্যন সরকার এগিয়ে যান। কিন্তু ফল হয় উল্টো। কীচেন থেকে ছুরি এনেই শ্যন সরকারের গলা ও ঘাড়ে ছুরিকাঘাত করেন বড়ভাই। মারাত্মকভাবে আহত হয় শ্যন। খবর পেয়ে এ্যাম্বুলেন্সসহ পুলিশ এসে শ্যনকে নিকটস্থ এলমহার্স্ট হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এরপর বড় ভাইকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।