কানাডার জাতীয় নিরাপত্তার জন্য প্রত্যক্ষ হুমকিস্বরূপ চীন!

কানাডার সঙ্গে চীনের সম্পর্কের আরও অবনতি। সম্প্রতি কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো চীনা কর্তৃপক্ষের হংকংয়ে দমননীতি এবং উইঘুর মুসলিমদের আটকে রাখার তীব্র সমালোচনাও করেছেন। এদিকে, কানাডার জাতীয় নিরাপত্তা এবং সার্বভৌমত্বের জন্য চীন প্রত্যক্ষ হুমকিস্বরূপ দাবি করে কানাডীয় গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান অভিযোগ করেছেন, কানাডার গোপন তথ্য চুরির চেষ্টা করছে চীন। খবর হিন্দুস্তান টাইমস’র।

কানাডার নিরাপত্তা গোয়েন্দা সেবার (সিএসআইএস) পরিচালক ডেভিড ভিনল্ট মঙ্গলবার একটি ফোরামে অংশ নিয়ে বলেছেন, সম্প্রতি কানাডার জন্য বড় হুমকি হয়ে উঠেছে চীন। কানাডার ব্যবসায়িক গোপন ও স্পর্শকাতর তথ্য চুরির চেষ্টা চালাচ্ছে দেশটির রাষ্ট্রসমর্থিত কর্মীরা।

ভিনল্ট বলেন, কানাডার বায়োফার্মাসিউটিক্যাল ও স্বাস্থ্য, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, কোয়ান্টাম কম্পিউটিং, সমুদ্র এবং মহাকাশ প্রযুক্তি খাত সবচেয়ে ঝুঁকিতে রয়েছে চীনের রাষ্ট্রসমর্থিত হ্যাকারদের জন্য। অর্থনৈতিক, প্রযুক্তিগত, রাজনৈতিক, সামরিক- সব দিক দিয়েই সুবিধা পাওয়ার কৌশল অবলম্বন করছে চীন সরকার।

২০১৮ সালে থেকেই কানাডার সঙ্গে চীনের সম্পর্কের ব্যাপক অবনতি ঘটে। ওই বছরের ডিসেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের অনুরোধে চীনা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের সিএফও মেং ওয়ানজৌকে গ্রেফতার করে কানাডা। এরপর পর থেকে তিক্ততার শুরু দুই দেশের মধ্যে।

বিডি প্রতিদিন

এমন আরো সংবাদ

একটি উত্তর দিন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

সর্বশেষ বিনোদন