স্ত্রী চলে যাওয়ায় একে একে ১৮ নারীকে খুন!

২১ বছর বয়সে বিয়ে করেছিলেন এক তরুণ।  প্রথম স্ত্রী অন্য যুবকের সঙ্গে চলে যাওয়ায় তা মানতে পারেন নি তিনি। এ ঘটনায় তরুণের মনের মধ্যে জমা হতে থাকে অপরিসীম ঘৃণা। এরই প্রেক্ষিতে একটি নয়, দুটি নয় ১৮ জন নারীকে খুন করে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে ওই তরুণ।

এটি কোনো সিনেমার দৃশ্য নয়; বাস্তবেই ভারতের হায়দরাবাদে সত্যিই সন্ধান মিলেছে এমনই এক সিরিয়াল কিলারের। এ ঘটনায় ওই তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সব মিলিয়ে তার বিরুদ্ধে ২১টি মামলা রুজু হয়েছে।

অভিযুক্ত এই সিরিয়াল কিলার পেশায় একজন শ্রমিক। সম্প্রতি দু’জন নারী খুনের মামলায় তাকে খুঁজছিল পুলিশ। তদন্তে নেমে অবশেষে সন্ধান মেলে তার। সিটি পুলিশ টাস্ক ফোর্স এবং রাচাকোন্ডা কমিশনারেটের পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে ৪৫ বছরের ওই ব্যক্তিকে।

জানা গেছে, ২০০৩ সালে অপরাধের দুনিয়ায় পা রাখে অভিযুক্ত। তার লক্ষ্যই থাকত একা থাকা নারীদের দিকে। তাদের টাকার বিনিময়ে যৌনতার প্রস্তাব দিত সে। ভুক্তভুগীরা বুঝতেও পারতেন না কোন ফাঁদে পা দিতে চলেছেন তারা। পুলিশ জানতে পেরেছে, খুনের আগে সব ক্ষেত্রেই ওই নারীদের সঙ্গে বসে মদ খেত অভিযুক্ত। তারপর সুযোগ বুঝে ঝাঁপিয়ে পড়ত তাদের উপরে। নৃশংসভাবে তাদের খুন করার পরে ওই নারীর কাছে থাকা দামী জিনিসপত্র নিয়ে চম্পট দিত সে।

সব মিলিয়ে একুশটি মামলা রয়েছে অভিযুক্তর বিরুদ্ধে। তার মধ্যে ১৬টি খুনের ও অন্য চারটি সম্পত্তিগত অপরাধ। এছাড়াও একবার পুলিশের হেফাজত থেকে পালিয়ে যাওয়ার কারণেও একটি মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তাকে জেরা করা শুরু করেছে পুলিশ।

এমন আরো সংবাদ

একটি উত্তর দিন

দয়া করে আপনার মন্তব্য লিখুন !
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

সর্বশেষ বিনোদন