ছেলেকে রিমান্ডের নির্যাতন থেকে বাঁচাতে মায়ের কানের দুল বিক্রি!

ছেলেকে রিমান্ডে নির্যাতন থেকে বাঁচাতে বিয়ের সময় স্বামীর কাছ থেকে পাওয়া স্বর্ণের কানের দুল বিক্রি করতে হয়েছে এক মাকে! বলা হচ্ছে, বিএনপির সহযোগী সংগঠন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের এক নেতার মায়ের কথা। তিনি ছেলেকে রিমান্ডে পুলিশি নির্যাতন থেকে বাঁচাতে পুলিশকে এ টাকা দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন।

ভুক্তভোগী ওই মা কাঁদতে কাঁদতে বলেন, আমার ছেলে আয় করে, তা দিয়ে আমরা ডাল ভাত খাই। আমার ওষুধ, আমার নাতির খরচ সব তার আয়েই চলে। কিন্তু আজ ১৩-১৪ দিন হয়ে গেলো আমার ছেলে জেলে। আমার একটা মাত্র ছেলে। আমরা এখন কি খাবো তা বুঝতে পারছি না।

সম্প্রতি ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন রাজধানীতে গ্রেফতার হওয়া বিএনপি ও তার সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন নেতাকর্মীদের পরিবারের খোঁজ নিতে গেলে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রদলের নেতা শহিদুল্লাহ রানার মা ইশরাক হোসেনের কাছে অভিযোগ করে এসব কথা বলেন।

ভুক্তভোগী ওই মা আরো বলেন, ‘অনেক কষ্ট করে আমার ছেলেকে লেখাপড়া করাইছি। আমার ছেলের ব্যবসাটা পর্যন্ত আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা নিয়ে নিয়েছে। এখন আমার শিশু বাচ্চা নাতিটার দুধ সংগ্রহ করে খাওয়াতে কষ্ট হচ্ছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমার ছেলে কোনো খারাপ কাজ করে না। বিএনপি করে বলে আমার ছেলেকে ধরে নিয়া গেছে। তাকে মারধর করেছে। ’

এসময় ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন ভুক্তভোগী মাকে সান্ত্বনা দিয়ে বলেন, ‘আসলে আজকে যারা সত্য কথা বলছে তাদের উপর জুলুম নির্যাতন চলছে। আপনারা জানেন আমাদের দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকেও দীর্ঘ সময় কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। আমরা আসলে আলাদা কেউ না, একটি পরিবার। আমাকে আমাদের দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জনাব তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আপনাদের খোঁজখবর নেয়ার জন্য পাঠিয়েছে। আপনাদের সব সুবিধা-অসুবিধা গুলো আমি দেখব এবং পাশে থাকার চেষ্টা করব। মনে রাখবেন সব জুলুম নির্যাতনের একটা শেষ আছে।