কানাডায় করোনা বৃদ্ধি, হাসপাতালে ভর্তির চাপ বাড়ছে

কানাডার প্রধান চারটি প্রদেশে ক্রমবর্ধমান হারে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

কানাডার অন্টারিও প্রদেশে আজ ১৪২৬ জনের শরীরে নতুন করে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে এবং ভাইরাস থেকে নতুন ১৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে আলবার্টায় নতুন শনাক্ত ৬৭২ জন, নতুন মূত্যর সংখ্যা ৭জন। আলবার্টায় ২১৭ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে, নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে ৪৬ জন ভর্তি যেখানে করোনা রোগীর জন্য নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে ৭০ টি বেড বরাদ্দ রয়েছে।

অন্টারিওর স্বাস্থ্যমন্ত্রী ক্রিস্টিন এলিয়ট বলেছেন, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পিল অঞ্চলে ৪৬৮ জন, টরন্টোয় ৩৮৪ জন এবং ইয়র্ক অঞ্চলে ১৮০ জনের নতুন করে শনাক্তের খবর পাওয়া গেছে। এছাড়াও তিনি উল্লেখ করেন ডারহামেও ৬৩ জন এবং হ্যামিল্টনে ৬২ জনের নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্তের সংখ্যা।

অন্যদিকে কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়া কুইবেকসহ অন্যান্য প্রদেশেও করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

কানাডার বিভিন্ন প্রদেশে ক্রমবর্ধমান হারে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধিতে কানাডাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। ইতিমধ্যে কানাডার কয়েকটি প্রদেশের অবস্থা নজরদারিতে রয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে অনেকক্ষেত্রে প্রদেশের প্রিমিয়ারদের হিমশিম খেতে হচ্ছে।

গতকাল কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এক সাংবাদিক সম্মেলনে প্রিমিয়ার দের উদ্দেশ্যে বলেছেন জনস্বাস্থ্য রক্ষায় এখনই সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে। জনস্বাস্থ্যের কথা চিন্তা করে প্রয়োজনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার কথাও তিনি বলেছেন।

অন্যদিকে কানাডার কোভিড-১৯ সংক্রমণ ক্রমাগতভাবে বেড়ে চলায় উদ্বেগ প্রকাশ করে দেশটির প্রধান জনস্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. থেরেসা ট্যাম বলেছেন, দেশের জনসংখ্যার ৯০ থেকে ৯৫ শতাংশ মানুষ এখনও সংক্রমণের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন। মহামারির দ্বিতীয় ধাপে কানাডার কোন অঞ্চলেই সংক্রমণ প্রতিরোধে নির্দিষ্ট জনগোষ্ঠীর মধ্যে সুরক্ষা বলয় বা হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হয়নি।

ট্যাম বলেন, আমাদের জনসংখ্যার মাত্র কয়েক শতাংশ সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে রয়েছেন। তবে দেশের জনসংখ্যার ৯০ থেকে ৯৫ শতাংশ মানুষ এখনও সংক্রমণের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন।

থেরেসা ট্যাম বলেন, যদি আমরা করোনা মোকাবিলায় নেওয়া উদ্যোগ কমিয়ে ফেলি তাহলে সংক্রমণের পুনরুত্থান ঘটতে পারে। তিনি বলেন, দেশে করোনা সংক্রমণের সংখ্যা বাড়ছে তবে কোথায়ও হার্ড ইমিউনিটি নেই।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, কানাডায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৭৭ হাজার ৬১ জন, মূত্যবরন করেছেন ১০ হাজার ৬ শত ৮৫ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ২৩ হাজার ১৯৯ জন।
রাজীব আহসান কানাডা