সৌদি ব্লগারের মুক্তি চেয়ে জার্মান লেখকদের চিঠি

সৌদি আরবের কারাগারে বন্দি থাকা দেশটির আলোচিত ব্লগার রাইফ বাদাওয়ির জীবন রক্ষায় জার্মান সরকারকে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে চিঠি লিখেছেন অর্ধশতাধিক জার্মান লেখক।

অনলাইনে লেখালেখির মাধ্যমে ইসলাম অবমাননার অভিযোগে বাদাওয়িকে কারাগারে বন্দি করে রেখেছে সৌদি সরকার। দীর্ঘদিন কারাগারে থাকায় তাঁর জীবন সংশয়ের সৃষ্টি হয়েছে। তাই বাদাওয়ির জীবন রক্ষার আহ্বান জানিয়ে এই চিঠি লিখেছেন জার্মান লেখকরা।

জার্মান প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্ক ভাল্টার স্টেইনমায়ার এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাইকো মাসকে লেখা এ চিঠিতে বাদাওয়ির স্বাস্থ্যের অবনতি নিয়ে দুশ্চিন্তার কথা তুলে ধরেন লেখকরা। ‘সহকর্মীর জীবন রক্ষায়’ দ্রুত তাঁর মুক্তি চাওয়ার আহ্বানও জানানো হয় চিঠিতে।

ডয়েচে ভেলে এক প্রতিবেদনে জানায়, চিঠিতে স্বাক্ষর করা লেখকরা মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করা আন্তর্জাতিক সংগঠন ‘পেন’-এর জার্মান শাখার সদস্য। স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে জনপ্রিয় লেখক হ্যার্টা ম্যুলার এবং বারবারা হোনিশমানও রয়েছেন।

বাদাওয়ির স্ত্রী এনসাফ হাইদার জার্মান লেখকদের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন। বাদাওয়ির স্ত্রী বলেন, ‘আমি প্রখ্যাত জার্মান লেখকদের প্রতি কৃতজ্ঞ এই চিঠির জন্য। বাদাওয়িকে মুক্তি দিয়ে আমাদের সঙ্গে কানাডায় আসার সুযোগ দেওয়া উচিত।’

২০১২ সালে ইসলাম অবমাননার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয় বাদাওয়িকে। দুই বছর পর তাঁকে ১০ বছরের কারাদণ্ড ছাড়াও এক হাজার বেত্রাঘাত এবং ১০ লাখ সৌদি রিয়াল (প্রায় দুই কোটি টাকা) জরিমানার আদেশও দেওয়া হয়।