নিজেকে ধর্ষিত মনে হয়েছিল, বিস্ফোরক মন্তব্য কঙ্গনার

শিবসেনা সরকারের তার প্রতি মনোভাব এবং বলিউডে চলতে থাকা ডামাডোল নিয়ে নিজের মনের কথা শেয়ার করলেন কঙ্গনা রনৌত। সেখানে ‘নিজেকে ধর্ষিত মনে হয়’ এমন বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন বলিউড অভিনেত্রী।

বেআইনি নির্মাণের অভিযোগে সপ্তাহ খানেক আগে কঙ্গনার মুম্বাইয়ের পালি হিলস এলাকার অফিসে বুলডোজার চালায় বৃহন্মুম্বাই মিউনিসিপ্যাল করপোরেশন বা বিএমসি।

এ ঘটনার পরদিন ১০ সেপ্টেম্বর বোন রঙ্গোলি চান্ডেলের সঙ্গে নিজের ‘মণিকর্ণিকা ফিল্মসের’ অফিসে যান কঙ্গনা। ঘুরে দেখেন ভাঙাচোরা অফিস ও বাংলো।

এই বাংলো ভাঙা নিয়ে টাইমস নাউকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মন্তব্য করেন কঙ্গনা। তিনি বলেন, “আমি যখন পৌঁছলাম, দেখলাম আমার গোটা বাড়িটা ভেঙে গেছে। আমি বিমানে থাকার সময়ই বুলডোজার পৌঁছে যায়। কোনো গ্যাংস্টারের সঙ্গেও এমন ব্যবহার করা হয় না। প্রায় ৪০ জন লোক এসে আমার বাড়ির লক ভেঙেছে। মনে হয়েছিল আমাকে ধর্ষণ করা হচ্ছে, মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলাম আমি।”

বুধবারের ওই সাক্ষাৎকারে বলিউডের নানা বিষয় নিয়ে মনের কথা শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী। কাস্টিং কাউচ থেকে বলিউডে ড্রাগ-যোগ এবং বিএমসির অফিস ভাঙার অভিজ্ঞতা জানান কঙ্গনা।

কাস্টিং কাউচ নিয়ে মন্তব্য, “আমি যখন এসেছিলাম, মেয়েরা তখন শুধু আইটেম নম্বর করত… কিন্তু কাউকে তো দরকার যে আপনাকে বেছে নেবে… নায়িকাদের কাছ থেকে এমন একটা চাহিদা থাকত সবার যেন নায়িকারা তাদের স্ত্রী।”

তার জীবন ঝুঁকিতে রয়েছে কি-না? এমন প্রশ্নে নায়িকা বলেন, “সুশান্তর মৃত্যুর পরই এই সব শুরু হয়েছে। আমি কেন্দ্রের কাছে নিরাপত্তা চেয়েছিলাম। যখন আমি ড্রাগ র‍্যাকেটের কথা প্রকাশ্যে এনে দিই তখন থেকেই এ সব শুরু।… কিন্তু আমি শুধু তদন্তে সাহায্য করতে চেয়েছিলাম।”

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে যান কঙ্গনা। কয়েক দিন আগেই মানালি থেকে মুম্বাই যান কঙ্গনা। যাওয়ার পথেই জানতে পেরেছিলেন পালি হিলসে তার অফিস ভেঙে দিচ্ছে মিউনিসিপ্যাল করপোরেশন। তার পরেই আবার মানালি ফিরে যান। রওনা হওয়ার আগে টুইট করে অভিনেত্রী জানান, এবার মুম্বাইয়ে তিনি অত্যন্ত খারাপ অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছেন।

লেখেন, “অত্যন্ত মন খারাপ নিয়ে আমি এবার মুম্বাই ছাড়ছি। যেভাবে এই কয়েক দিন ধরে আমাকে সমানে ভয় দেখানো হয়েছে, কুরুচিকর আক্রমণের নিশানা করা হয়েছে, আমার অফিসের পর আমার বাড়িও ভাঙার চেষ্টা করা হয়েছে। সশস্ত্র নিরাপত্তারক্ষীরা আমার চারপাশে সব সময় সজাগ ও সতর্ক ছিলেন, অবশ্যই বলব মুম্বাইয়ের সঙ্গে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের তুলনা করে একদম ঠিক করেছি।”

এ দিকে নাম উল্লেখ না করে মঙ্গলবার সংসদে কঙ্গনার ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন অভিনেত্রী জয়া বচ্চন। এর উত্তরও দিয়েছেন কঙ্গনা। তবে বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর পক্ষ নিয়ে কথা বলছেন সহকর্মীদের অনেকেই।