নবম ফটোফি বর্ষসেরা আলোকচিত্রী সালাহউদ্দিন

‘ফটোফি বর্ষসেরা আলোকচিত্রী পুরস্কার ২০১৯’ পেলেন ফটোসাংবাদিক সালাহউদ্দিন আহমেদ। ২০১৮ সালে প্রকাশিত ‘আর্ট অ্যাগেইনস্ট জেনোসাইড’ শীর্ষক বইটির জন্য তাঁকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়।

বইটিতে সালাহউদ্দিনের মোট ৪০টি রোহিঙ্গা সংকটবিষয়ক আলোকচিত্র রয়েছে। ২০১১ সাল থেকে ঢাকার ফটোফি একাডেমি অব ফাইন আর্ট ফটোগ্রাফি প্রতিবছর একজন প্রতিশ্রুতিশীল আলোকচিত্রীকে এ পুরস্কার দিয়ে আসছে।

আজ শনিবার বিকেলে রাজধানীর বাংলামোটরের বাতিঘরে বিজয়ীর হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়। সীমিত পরিসরে আয়োজিত পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন আলোকচিত্রী শফিকুল আলম কিরণ ও আবীর আবদুল্লাহ। বিজয়ীর হাতে ১০ হাজার টাকা, একটি ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ফটোফির প্রধান সমন্বয়ক সিরাজুল লিটন ও সমন্বয়ক শিশির চৌধুরী।

শফিকুল আলম কিরণ বলেন, ‘এটি একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ। পুরস্কার শিল্পীকে উৎসাহিত করে। পুরস্কার শিল্পীকে আরও দায়িত্বশীল করে। ফটোফি আলোকচিত্রীদের প্রতি তার দায়িত্ব পালন করছে। আশা করি, বিজয়ী আলোকচিত্রীও তাঁর দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করবেন।’

আবীর আবদুল্লাহ বলেন, ‘মহামারির সময়েও এ ধরনের কাজ অব্যাহত রাখায় আয়োজক পক্ষকে ধন্যবাদ। আসলে এটাই হলো আমাদের সাহস এবং ভবিষ্যতে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা।’

পুরস্কার পাওয়ার পর সালাহউদ্দিন বলেন, ‘একটি ভালো কাজের জন্য পুরস্কার পেলাম। এই পুরস্কার আরেকটি ভালো কাজের জন্য আমাকে উৎসাহিত করবে।’


সিরাজুল লিটন প্রথম আলোকে বলেন, ‘সালাহউদ্দিনের ছবিগুলো অন্য আলোকচিত্রীদের থেকে স্বতন্ত্র। তাঁর ছবিগুলোতে দেশহীন রোহিঙ্গাদের সংগ্রামের গল্পের পাশাপাশি বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের আনন্দ-বেদনা এবং জীবনযাপনের চিত্রও ফুটে উঠেছে।’

এর আগে এই পুরস্কার যাঁরা পেয়েছেন তাঁরা হলেন এস এ শাহরিয়ার রিপন, কামরুজ্জামান, মুনেম ওয়াসিফ, প্রীত রেজা, কে এম আসাদ, জয় কে রায় চৌধুরী, সুমন ইউসুফ ও ফরিদা আলম।