বার্সা ছাড়ার কথা জানিয়ে দিলেন মেসি!

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের বিপক্ষে অবিশ্বাস্যভাবে ৮-২ গোলে পরাজয়ের পর টালমাটাল বার্সেলোনা শিবির। এরই মধ্যে গুঞ্জন ওঠেছিল দলের সেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসির বার্সা ত্যাগের। শেষ পর্যন্ত এমনই ইঙ্গিত দিয়েছে ক্রীড়া বিষয়ক নির্ভরযোগ্য সূত্রগুলো।

আর্জেন্টাইন গণমাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টস জানাচ্ছে ফ্যাক্সযোগে বার্সেলোনা ছাড়তে চাওয়ার কথা ক্লাব কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে দিয়েছেন লিওনেল মেসি। সেকারণে স্প্যানিশ দলটির সঙ্গে তার যে চুক্তি রয়েছে, তা বাতিল করতেও অনুরোধ করেছেন ৩৩ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড।

মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে টিওয়াইসি স্পোর্টস বলেছে, মেসি আর বার্সেলোনায় থাকতে রাজি নন। প্রিয় ঠিকানার সঙ্গে ২০ বছরের সম্পর্কের ইতি টানতে চান তিনি। খেলতে চান না নতুন কোচ রোনাল্ড কোমানের অধীনে।

স্প্যানিশ সাংবাদিক আলফ্রেদো মার্তিনেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে লিখেছেন, মেসি চলতি সপ্তাহে বার্সার তত্ত্বাবধানে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করাবেন না বা দলটির সঙ্গে প্রশিক্ষণে যোগ দেবেন না। এটাই নাকি তার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। তিনি আরও জানিয়েছেন, ইতোমধ্যে বার্সা একটি জরুরি বোর্ড সভাও ডেকেছে।

এদিকে, মেসির ক্লাব ছাড়তে চাওয়ার প্রতিবেদন প্রকাশের পর বার্সেলোনার প্রাক্তন অধিনায়ক কার্লোস পুয়োল একটি টুইট করেছেন, যা চায়ের কাপে ঝড় তুলতে বাধ্য। স্পেনের বিশ্বকাপজয়ী সাবেক তারকা লিখেছেন, ‘লিও, (তোমার প্রতি) শ্রদ্ধা ও প্রশংসা। বন্ধু, আমার সমস্ত সমর্থন থাকবে (তোমার প্রতি)।’

আরেক স্প্যানিশ সাংবাদিক গুইলেম বালাগ জানিয়েছেন, মেসির কাছ থেকে ফ্যাক্স আসার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বার্সেলোনা। তবে চুক্তিতে মেসির একতরফা সিদ্ধান্তে ক্লাব ছাড়ার যে শর্ত রয়েছে, তা কার্যকর করার সময় ইতোমধ্যে শেষ হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে তারা।

বার্সার সঙ্গে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের বর্তমান চুক্তির মেয়াদ রয়েছে আগামী ২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত। কিন্তু চুক্তিতে জুড়ে দেওয়া আছে বিশেষ একটি শর্ত- চাইলেই প্রতি মৌসুমের শেষে বিনামূল্যে ন্যু ক্যাম্প ছাড়তে পারবেন তিনি। তবে শর্ত কার্যকর করতে হলে ক্লাব কর্তৃপক্ষকে ১ জুনের আগে সিদ্ধান্ত জানাতে হবে রেকর্ড ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ীকে।

স্প্যানিশ গণমাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের পরিবর্তিত পরিস্থিতির কারণে শর্তটি কার্যকর করার সুযোগ পেতে পারেন মেসি। কারণ, মাঝে লম্বা সময় খেলা বন্ধ ছিল এবং লা লিগার নতুন মৌসুম শুরু হতে আরও প্রায় তিন সপ্তাহ বাকি।