ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে বাংলাদেশি ইলিশ বিক্রি, নিউজিল্যান্ডের দুই যুবক

প্রায় দুই বছর আগে ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে ইলিশ বিক্রিতে নেমেছিলেন নিউজিল্যান্ডের দুই যুবক। ঘটনাটি দেশটির প্রশাসনের নজরে পড়তেই তারা আটক হন। দুই বছর পর বুধবার আদালত তাদের ৪৩ লাখ টাকা জরিমানা করেছে।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ড ‘র একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, ওই দুই ভাইয়ের খান ব্রাদার্স ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেড নামের একটি হোলসেল বিজনেস কোম্পানি আছে। ওয়েস্ট অকল্যান্ডের ওয়েটকেরে ডিসট্রিক্ট কোর্টে অননুমোদিত মাছ বিক্রির দায়ে দুই ভাই দোষী সাব্যস্ত হন। বায়োসিকিউরিটি অ্যাক্ট ১৯৯৩ অনুযায়ী, নিউজিল্যান্ডে ইলিশ আমদানি নিষিদ্ধ।

অভিযোগের নথি থেকে জানা গেছে, কোম্পানিটির পরিচালক জন খান। তিনি তিন হাজার ৫০০ কেজি ইলিশ মাছ ‘ভারতীয় সার্ডাইনস’ দাবি করে আমদানির চেষ্টা করেন। সেই চেষ্টায় সফল হয়ে ২০১৭ থেকে ২০১৮ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বিক্রি করেন।

৩৮ বছর বয়সী জনের আসল নাম মুস্তাফিজুর রহমান খান। জরিমানার পাশাপাশি তাকে প্রায় গৃহবন্দী ঘরানার এক ধরনের স্থানীয় সাজা দেয়া হয়েছে। এর নাম কমিউনিটি ডিটেনশন। অর্থাৎ পরবর্তী ছয় মাস আদালতের বিশেষ অনুমতি ছাড়া তিনি বাইরে বের হতে পারবেন না। এর পাশাপাশি ১২ মাস নজরদারিতে থাকবেন।

আদালত তার রায়ে জানিয়েছেন, মুস্তাফিজুর অনলাইনের পাশাপাশি দোকানেও ইলিশ বিক্রি করেন। আরেকজনের নাম মশিউর রহমান। স্থানীয় বাসিন্দারা তাকে জর্জ খান নামে চেনেন।