ডেইলি মিরর ও এক্সপ্রেসের সাড়ে পাঁচশ কর্মী চাকরি হারাচ্ছেন

ভোরের আলো ডেষ্ক: যুক্তরাজ্যের ঐতিহ্যবাহী ট্যাবলয়েড ডেইলি মিরর, ডেইলি এক্সপ্রেস ও ডেইলি স্টার (ইউকে) পত্রিকা থেকে সাড়ে পাঁচশ কর্মী ছাঁটাই করছে কর্তৃপক্ষ। সাম্প্রতিক করোনাভাইরাস (কভিড-১৯) পরিস্থিতিতে পত্রিকার বিক্রি কমে যাওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

ডেইলি মিরর ও ডেইলি এক্সপ্রেস ছাড়াও একই মালিকের ডেইলি স্টার (ইউকে), ওকে! ম্যাগাজিন রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি জানাচ্ছে গত প্রান্তিকে তাদের বিক্রি মারাত্মকভাবে কমে যাওয়ায় আয় প্রায় ৩০ শতাংশ কমে গেছে। এ কারণে প্রায় ১২ শতাংশ জনবল ছাঁটাই করতে হচ্ছে তাদের।

প্রতিষ্ঠানগুলোর মালিকপক্ষের দাবি বিক্রি ও বিজ্ঞাপন থেকে আয় মারাত্মকভাবে কমে গেছে। প্রতিষ্ঠানটির সিইও জিম মুলেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শুধু করোনাভাইরাসের কারণেই নয়, গত বছরও প্রতিষ্ঠানটির আয় ১৩ শতাংশ কমেছিল। তবে ব্যয় সংকোচন করে গত বছর সে ধাক্কা সামলে নেয় প্রতিষ্ঠানটি।

গত বছর প্রতিষ্ঠানটির সার্কুলেশন কমলেও অনলাইনে পাঠক বাড়ায় সে যাত্রা সামলে নেয়। এবার অবশ্য করোনাভাইরাসের কারণে বেশ অসুবিধায় পড়েছে। কর্মী ছাঁটাই ও বিভিন্নভাবে ব্যয় সংকোচন করে প্রতিষ্ঠানটি ৩৫ মিলিয়ন পাউন্ড ব্যয় সংকোচন করতে পারবে বলে আশা করছে।

শত বছরের ঐতিহ্যবাহী ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড ডেইলি মিরর প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯০৩ সালে। সূত্র : বিবিসি।