এক ধাক্কায় ২২ শতাংশ কমতে পারে রেমিট্যান্স

করোনা মহামারির ধাক্কায় বাংলাদেশে এ বছর প্রবাসীদের পাঠানো আয় ২২ শতাংশ কমে যেতে পারে বলে বিশ্ব ব্যাংকের নতুন এক রিপোর্টে আশংকা প্রকাশ করা হয়েছে।

আজ প্রকাশিত ‘কোভিড-১৯ ক্রাইসিস থ্রু মাইগ্রেশন লেন’ শীর্ষক রিপোর্টে শুধু বাংলাদেশ নয়, বিশ্বব্যাপী সব দেশই রেমিট্যান্স আহরণে বড় ধাক্কার মধ্যে পড়বে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়ায় ২০২০ সালে আগের বছরের তুলনায় রেমিট্যান্স কমতে পারে গড়ে ২২ শতাংশ, যা ভারত ও পাকিস্তানের ক্ষেত্রে ২৩ শতাংশ কমবে বলে প্রক্ষেপণ করা হয়েছে। গত বছর দক্ষিণ এশিয়ায় শীর্ষ তিন রেমিট্যান্স আহরণকারী দেশ ছিল ভারত,পাকিস্তান ও বাংলাদেশ।

বিশ্ব ব্যাংকের প্রাক্কলন অনুযায়ী, বাংলাদেশে ২০২০ সালে রেমিট্যান্স আসতে পারে ১ হাজার ৪০০ কোটি ডলার, যা ২০১৯ সালে ছিল ১ হাজার ৮৩০ কোটি ডলার।

বিশ্বব্যাংকের পর্যবেক্ষণে বলা হয়, রেমিট্যান্স ছিল বাংলাদেশসহ নিম্ন ও মধ্য আয়ের দেশগুলোর দরিদ্র জনসাধারণের জীবন-জীবীকার অন্যতম উৎস।

কিন্তু কোভিড-১৯ মহামারির ধাক্কায় দেশে দেশে ব্যাবসা-বাণিজ্য বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেকেই চাকরি হারাবেন। ফলে প্রবাসীদের পাঠানো আয় কমবে। এতে এসব দেশে বেকারত্ব-দারিদ্র্য আরও বাড়বে।

বিশ্ব ব্যাংক বলেছে, এই পরিস্থিতিতে তারা সদস্য দেশগুলো যাতে উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতে পারে, সে বিষয়ে তড়িৎ পদক্ষেপ নিয়েছে। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে যাতে তাদের মৌলিক চাহিদা পূরণ করা যায়।