কানাডার প্রধানমন্ত্রী ট্রুডোর স্ত্রী সোফি করোনায় আক্রান্ত

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর স্ত্রী সোফি গ্রেগয়ের–ট্রুডো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। স্বাস্থ্য পরীক্ষায় তাঁর শরীরে করোনাভাইরাসের কারণে দেখা দেওয়া কোভিড–১৯ রোগের উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ট্রুডোর কার্যালয় থেকে এ কথা ঘোষণা করা হয়। চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী সোফিকে নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত পৃথক রাখা হবে। খবর এএফপির।

খবরে জানানো হয়, সোফির শরীরে করোনাভাইরাস-সৃষ্ট রোগ ধরা পড়লেও তা এখনো প্রকট হয়ে ওঠেনি। মৃদু মাত্রায় রয়েছে। তবে জাস্টিন ট্রুডোর শরীরে এখনো ওই ভাইরাস শনাক্ত হয়নি।

‘প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্য ভালো আছে’ উল্লেখ করে বার্তায় বলা হয়েছে, ‘প্রধানমন্ত্রীর শরীরে করোনার কোনো লক্ষণ নেই। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে ও চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী তাকে ১৪ দিনের জন্যে আলাদা করে রাখা হতে পারে।’

ট্রুডোর করোনা পরীক্ষা করা হবে না বলেও বার্তায় উল্লেখ করা হয়েছে।

‘প্রধানমন্ত্রী বাসা থেকে তার সরকারি কাজ পুরোদমে চালিয়ে যাবেন। তিনি (আজ) জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিবেন।’

বুধবার যুক্তরাজ্যে এক অনুষ্ঠানের পর ট্রুডোর স্ত্রী সোফি গ্রেগয়ের খানিকটা অসুস্থ বোধ করেন। এরপর থেকে ট্রুডো ও তাঁর স্ত্রী স্বেচ্ছা আইসোলেশনে আছেন। তবে ট্রুডোর শরীরে করোনার লক্ষণ দেখা যায়নি। আর তাঁর স্ত্রীর শারীরিক পরীক্ষা করা হয়।