ভারতে সাম্প্রদায়িক নিপীড়নের বিরুদ্ধে টরন্টোতে মানববন্ধন

ভোরের আলো রিপোর্ট:
ভারতের দিল্লীতে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা ও নিযাতনের প্রতিবাদে টরন্টোয় বসবাসরত বাংলাদেশিরা মানববন্ধন করেছে। গত রোববার ডেনফোর্থের নিশিথা ফ্রেশ ফুডস সংলগ্ন স্থানে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে দলমত ও ধর্ম নির্বিশেষে বিভিন্ন দেশের মুসলিম ও প্রবাসী বাংলাদেশিরা অংশ নেন। সবাই সোচ্চার কণ্ঠে ভারতের রাষ্ট্রীয় মদদে মুসলমান ধর্মাবলম্বীসহ নাগরিকদের উপর নির্যাতন বন্ধের দাবি জানান। জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব টরন্টো, কানাডা এই মানববন্ধনের আয়োজন করলেও মৌলভীবাজার এসোসিশেন অব টরন্টো, হবিগঞ্জ এসোসিয়েশন অব টরন্টো, টরন্টো দূর্গা বাড়ি, সুনামগঞ্জ এসোসিয়েশন অব টরন্টো, সিলেট সদর এসোসিয়েশন অব টরন্টো, উদিচী শিল্প গোষ্ঠী, টরন্টো এবং গোলাপগঞ্জ ফাউন্ডেশন অব টরন্টো’র বাংলাদেশি নেতৃবৃন্দ এই কর্মসূচীতে অংশ নেন। মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারীরা ভারতে সাম্প্রদায়িক হামলা অবিলম্বে বন্ধ এবং বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন বাতিলের দাবি জানান। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বিশ্বের কোনো একটি প্রান্তে মানুষ রাষ্ট্রীয় নিপীড়নের হলে কোনো বিবেকবান মানুষই চুপ থাকতে পারে না। বিবেকের তাড়নায় আমরা ভারতে সংঘটিত সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে এই কর্মসূচীর আয়োজন করেছি। তারা বলেন, যে কোনো অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধেই টরন্টোর সাংস্কৃতিক কর্মীসহ সাধারন মানুষ প্রতিবাদ জানিয়েছে। এই কর্মসূচী তারই ধারাবাহিকতা মাত্র। ভারতের মানবতা আক্রান্ত হচ্ছে, সেই মানবতাবাদী, বিবেকসম্পন্ন কোনো মানুষই চুপ থাকতে পারে না। তিনি ভারতে নিপীড়ন বন্ধের দাবি জানান। মানববন্ধনে রেশাদ চৌধুরী, ভোরের আলো সম্পাদক আহাদ খন্দকার, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সভাপতি দেবব্রত দে তমাল, আজকাল সম্পাদক ও জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব চৌধুরী রনি, ফারুক আহমেদ, মিজান চৌধুরী, মিলাদ চৌধুরী, নওয়াজ চৌধুরী সাজু, ভোরের আলোর ব্যবস্থাপনা সম্পাদক আরিফ আহমেদ, ড. হানিফ হোসাইন, তৌফিক আলম, রাজি আলম, ফায়জুল করিম, রেজওয়ান, আমরুল ইসলাম ইমরুল, রানা দেব রায়, বিদ্যুৎ রঞ্জন দেব, দেলওয়ার এলাহী, সুবাস দাস, মকবুল হোসেন মঞ্জু, মেহেদি মারুফ, ইলিয়াস খান, হিমাদ্রি রায়, আসাদ আহাদ নিশু, জুমেল চৌধুরী, বেলায়েত হোসেন চৌধুরী রিপন, সৈয়দ আবু আফসার, ড. সুশীতল সিংহ চৌধুরী, হামিদ, ব্লগার রেজাউল, প্রকৌশলী নওশের আলী, সামন ভূইয়া, উজ্জল দাস, এমদাদ হোসেইন, মিন্টু, সাজু, রাফি চৌধুরী, মিনারা বেগমসহ অনেকেই বক্তব্য রাখেন।