দিল্লির ঘটনায় বিজেপি ছাড়লেন অভিনেত্রী সুভদ্রা

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (সিএএ) প্রতিবাদে দিল্লি দাঙ্গায় মৃতের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। বিষয়টি নিয়ে সরব টালিউড জগত। তবে প্রতিবাদ করে বিজেপি ছাড়লেন অভিনেত্রী সুভদ্রা মুখোপাধ্যায়।

অভিনেত্রীর বক্তব্য, সাম্প্রতিক পরিস্থিতি দেখে তিনি দলের প্রতি আস্থা হারাচ্ছেন। কপিল মিশ্র, অনুরাগ ঠাকুরদের মতো মানুষকে তিনি ‘সহযোদ্ধা’ হিসেবে মেনে নিতে পারছেন না। তাই দল থেকে বেরিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেন। দলের সদস্যপদ থেকে প্রত্যাহার করেছেন।

অভিনেত্রী বলেন, সাম্প্রদায়িক হিংসা ও বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে দেশজুড়ে। গোটা ঘটনায় বেশ কিছুদিন ধরেই ক্ষোভ তার মনে। দ্বিতীয়বার যখন সরকার তৈরি করেন নরেন্দ্র মোদি, তখন অনেক প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সেগুলির সঙ্গে একমত ছিলেন অভিনেত্রী। তাই বিজেপি যোগ দেন। কিন্তু বর্তমানে মোদি সরকার সেই প্রতিশ্রুতি থেকে অনেকটাই সরে এসেছে। তাই তিনি সদস্যপদ থেকে প্রত্যাহার করেছেন।

বিজেপির মাধ্যমে মানুষ উপযুক্ত সম্মান পাবেন বলে মনে করেছিলেন অভিনেত্রী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ভেবেছিলাম মানুষ এবার তার প্রাপ্য সম্মান পাবে। কিন্তু আদতে তার বিন্দুমাত্র হচ্ছে না। সম্মানেরই যেন বড় অভাব। আজ দিল্লিতে যেভাবে হিংসা ছড়াচ্ছে, আগামীকাল যে কলকাতায় হবে না, এমন কেউ জোর দিয়ে বলতে পারে না। তখন কেউ ছাড়া পাবে না, সবাই হিংসার বলি হবে। আজ যেমন দিল্লিতে হচ্ছে। দিল্লিতে তো ভাইয়ে ভাইয়ে ঝগড়া লাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ভোটের আগে কলকাতায় যদি এমন ঘটনা ঘটে, তা হলে ঠেকাবে কে? আজ একটা সম্প্রদায় হুমকি দিচ্ছে, কাল অন্যরা দেবে। এভাবেই চলতে থাকবে।

অভিনেত্রী আরও বলেন, তিনি সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করতে চান। এভাবে রাজনীতির কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি খেলায় থাকলে নিজের আদর্শ থেকেই বিচ্যুত হবেন তিনি। তাই বিজেপির সদস্যপদ ছেড়েছেন।