বিশ্বের সেরা পুলিশ বাহিনী আরসিএমপি

বিশ্বের সেরা পুলিশ বাহিনী হিসেবে তালিকার প্রথম স্থানটি আরসিএমপি বা রয়্যাল কানাডিয়ান মাউন্টেড পুলিশের দখলে। সাধারণ জনগণ আর কানাডার সাধারণ পুলিশ বাহিনীর চোখে তারা মাউন্টিস বলে পরিচিত। ১৯২০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি প্রতিষ্ঠিত এই বাহিনী পৃথিবীর সবচেয়ে দক্ষ আর বিখ্যাত পুলিশ বাহিনী হিসেবে এক নামে পরিচিত। আর এদের নিজেদের এমন বিখ্যাত হওয়ার পেছনের অন্যতম কারণ এরা কেবল দেশের ভিতরের বিভিন্ন ঝামেলাই নয়, মীমাংসা করে দেশের বাইরে আন্তর্জাতিক সব ধরনের ঝুট-ঝামেলাগুলোও। ফেডারেল এবং জাতীয় পুলিশ বাহিনী কানাডার আরসিএমপি ফেডারেল স্তরে আইন প্রয়োগের ব্যবস্থা করে। এটি কানাডার আটটি প্রদেশে (আলবার্টা, ব্রিটিশ কলম্বিয়া, ম্যানিটোবা, নিউ ব্রান্সউইক, নিউফাউন্ডল্যান্ড এবং ল্যাব্রাডর, নোভা স্কটিয়া, প্রিন্স এডওয়ার্ড দ্বীপ এবং সাসকাচোয়ান) পুলিশিং সরবরাহ করে। তারা চুক্তি ভিত্তিতে স্থানীয় পুলিশিং সরবরাহ করে তিনটি অঞ্চল উত্তর-পশ্চিম অঞ্চল, নুনাভাট এবং ইউকন এ। দেড় শতাধিক পৌরসভা, ৬০ হাজার আদিবাসী সম্প্রদায় এবং তিনটি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর রয়েছে তাদের রক্ষণাবেক্ষণের আওতায়।

An armed RCMP officer stands on Parliament Hill, a day after an RCMP incident involving Aaron Driver in Strathroy, Ontario, on Thursday, Aug. 11, 2016 in Ottawa. THE CANADIAN PRESS/Justin Tang

আরসিএমপি অন্টারিও বা কিউবেকে সক্রিয় প্রাদেশিক বা পৌরসভা পুলিশিং সরবরাহ করে না তবে, অন্টারিও এবং কুইবেকসহ কানাডার সমস্ত অঞ্চলে আরসিএমপির সমস্ত সদস্যের এখতিয়ার রয়েছে।
আন্তর্জাতিক পুলিশের অন্যতম একটি অংশ আইওবি হচ্ছে আরসিএমপি প্রধান কার্যালয়ের একটি অংশ। আরসিএমপির অপারেশনগুলোর মধ্যে রয়েছে বাণিজ্যিক অপরাধ, জালিয়াতি, মাদক পাচার, সীমান্ত অখন্ডতা, সংঘটিত অপরাধ এবং অন্যান্য সম্পর্কিত বিষয়গুলোসহ ফেডারেল আইন প্রয়োগ। তারা সন্ত্রাসবাদ ও দেশীয় সুরক্ষা প্রদান, কানাডিয়ান রাজতন্ত্র, গভর্নর জেনারেল, প্রধানমন্ত্রী ও তাদের পরিবার, বাসস্থান এবং মুকুট অন্যান্য মন্ত্রীদের, পরিদর্শন বিশিষ্ট ব্যক্তি এবং কুটনৈতিক মিশনের সুরক্ষা সেবা সরবরাহ করে থাকে।