আসাদ দিবসের আলোচনায় বক্তারা, বাংলাদেশে এখন আসাদের মতো নেতৃত্ব প্রয়োজন

ভোরের আলো রিপোর্ট: বাংলাদেশে এখন চরম দুঃশাসন চলছে। দেশের মানুষ স্বৈরাচারি সরকারের যাতাকলে পিষ্ট। এমন অবস্থায় আসাদের মতো নেতৃত্ব বড়ই প্রয়োজন। তার মতো চেতনাধারি নেতৃত্ব তৈরি হলেই বাংলাদেশের মানুষ সুস্থভাবে জীবনযাপন করতে পারবে। সম্প্রতি ভোরের আলো কার্যালয়ে শহীদ আসাদ দিবসের আলোচনায় বক্তারা এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ এসোসিয়েশনের সভাপতি জাকির খানের সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্’িত ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ড. জসিম উদ্দিন আহমেদ। জাকারিয়া চৌধুরীর স ালনায় শহীদ আসাদের কর্মময় জীবন নিয়ে আলোচনায় অংশ নেন ভোরের আলো সম্পাদক আহাদ খন্দকার, কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব ড. সিরাজুল হক চৌধুরী, সমাজসেবক মঈন চৌধুরী, কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব মমিনুল হক মিলন, নবদীপ সম্পাদক এমএইচ মামুন, কানাডা বাংলাদেশ কালচারাল এসোসিয়েশনের সভাপতি মিলাদ চৌধুরী, সিনিয়র সাংবাদিক সৈয়দ রফিকুল হক জামাল, ভোরের আলো বার্তা সম্পাদক দীন ইসলাম ও বিশিষ্ট ছাত্রনেতা মনিরুজ্জামান নয়ন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. জসিম উদ্দিন আহমেদ বলেন, ষাটের দশকের ছাত্র রাজনীতির সঙ্গে এখনকার ছাত্র রাজনীতির বিশাল ফারাক। আসাদ ছিলেন আমার পরম বন্ধু। দেশ ও দেশের মানুষের জন্য নিবেদিত প্রাণ। শহীদ আসাদের আত্মহুতির বিনিময়ে আমাদের স্বাধীনতার বীজ বপন করা হয়েছে। ১৯৫২, ১৯৬২ ও ১৯৬৯ সালের আন্দোলনের মাধ্যমে ধাপে ধাপে আমাদের স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে। ভোরের আলো সম্পাদক আহাদ খন্দকার বলেন, ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে আমাদের সামনে এগিয়ে যেতে হবে। এখনই সময় ইতিহাস থেকে শিক্ষা নেয়ার। গত কয়েক দিনে ভারত সাত জনকে হত্যা করেছে। শহীদ আসাদের চেতনা আমাদের মধ্যে থাকলে এটার বিরুদ্ধে জোরালো প্রতিবাদ করতে পারতাম। সমাসেবক মঈন চৌধুরী শহীদ আসাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বলেন, মানুষের জন্য নিবেদিত প্রাণ ব্যক্তিরা মরে না। তারা তাদের কর্মের মাধ্যমে আজীবন বেঁচে থাকেন। আসাদের আত্মার মাগফেরাত ও শান্তি কামনা করছি। ড. সিরাজুল হক চৌধুরী বলেন, বীরদের মৃত্যু নেই। শহীদ আসাদ ছিলেন উনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের মহানায়ক। স্বৈরাশাসক আইয়ুব খানের বিরুদ্ধে মিছিলে নেতৃত্ব দিতে গিয়ে প্রাণ হারান আসাদ। এ সময়ে তার মতো নেতৃত্বের প্রয়োজনীয়তা বোধ করছি। আলোচনা অনুষ্ঠানে অন্যান্য বক্তারা বলেন, আসাদ দিবস এখন দায়সারা গোছে পালন করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী সরকার। স্বৈরাচারি সরকার পতনের আসাদের মতো নেতা বড়ই প্রয়োজন।