পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় সিএএ-বিরোধী প্রস্তাব পাস

ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) প্রত্যাখ্যান করে চতুর্থ রাজ্য হিসেবে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় প্রস্তাব পাস হয়েছে।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ), জাতীয় নাগরিক নিবন্ধন (এনআরসি) ও জাতীয় জনসংখ্যা নিবন্ধন (এনপিআর) নিয়ে এখন উত্তপ্ত ভারতের রাজনীতি। রাজ্যে রাজ্যে চলছে এসব আইন বাতিলের আন্দোলন।

আজ (২৭ জানুয়ারি) পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) প্রত্যাখ্যান করে একটি প্রস্তাব পেশ করেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। প্রস্তাব পেশের পর বিজেপি সদস্যরা বিরোধিতা করলেও বেশিক্ষণ তা টিকতে পারেনি। ভোটাভুটি ছাড়াই বিধানসভায় প্রস্তাবটি পাস হয়ে যায়। বাম এবং কংগ্রেস প্রতিনিধিরা এ প্রস্তাবনায় সমর্থন দেন।

এরপর বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে সিএএ, এনআরসি আর এনপিআর করার অনুমতি দেবেন না এমন ঘোষণা দেন। মমতা আরও বলেছেন, “আমরা শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করব।”

তিনি অভিযোগ করেন, “সিএএ মেনে দেশের নাগরিকত্ব পেতে হলে, আগে নিজেকে বিদেশি বলে ঘোষণা করতে হবে। এটা মারাত্মক ষড়যন্ত্র।”

ইতিমধ্যে ভারতের কেরালা, পাঞ্জাব ও রাজস্থানে সিএএ প্রত্যাহারের দাবিতে রাজ্য বিধানসভায় প্রস্তাব পাস হয়েছে।

গত ১ ডিসেম্বর ভারতের লোকসভায় সিএএ বিল আইন হিসেবে পাস হয়। এর পরেই এই আইনের বিরোধিতা করে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে আন্দোলন শুরু হয়।