বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে একযোগে কাজ করবে সিবিসিসি

বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে একযোগে কাজ করবে সিবিসিসি ‘উন্নতির জন্য নেতৃত্ব’ স্লোগানকে সামনে রেখে কানাডা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এর উদ্যোগে উদ্যোক্তা সম্মেলন ২০১৯ সম্পন্ন হয়েছে।
শুক্রবার (২১ ডিসেম্বর) টরন্টোস্থ ডেল্টা হোটেলের হল রুমে স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় এই ণ্ডরুত্বপূর্ণ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কানাডা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মাইনুল আলম খান। সভাপতির বক্তব্যে তিনি অনুষ্ঠানে আসার জন্য সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। সিবিসিসি’র পক্ষ থেকে আগামীতে আরো উন্নয়নমূলক আয়োজনের প্রতিশ্রুতি দেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন কানাডা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের নির্বাহী সহ-সভাপতি, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আরিফ রহমান।আরিফ রহমান বলেন, সিবিসিসি কানাডা-বাংলাদেশের ব্যবসায়ীক সম্পর্ক বৃদ্ধিতে কাজ করে যাবে। আগামীতে সকলকে সাথে থাকার আহবান জানান তিনি।
সেমিনারে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন, শিল্প ঋণ সংস্থা ও শিল্প ব্যাংক’র সাবেক এমডি, বাংলাদেশ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও মিজানুর রহমান, অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ-কানাডার ‘অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং ব্যবসায়িক সুযোগ’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন কানাডাস্থ জর্জ ব্রাউন কলেজজের প্রফেসর সাইফুর রহমান, তিনি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ল্যান্ডস্কেপ এবং বিনিয়োগের সুযোগণ্ডলি সম্পর্কে একটি সংক্ষিপ্ত ংষরফব ংযড়ি উপস্থাপনা করেন। উনি বাংলাদেশের দ্রুততম বর্ধমান পরামর্শক সংস্থাণ্ডলির অন্যতম, লাইটকাস্টল পার্টনার্সের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক । এই উপস্থাপনাটি তাদের সাম্প্রতিক প্রকাশনার সংক্ষিপ্তসার ছিল “বাংলাদেশ – ডিজিটাল বিজনেস ব্লুপ্রিন্ট ২০১২-২০” বাংলাদেশী অর্থনীতির ণ্ডরুত্বপূর্ণ দিকণ্ডলি, বাংলাদেশ সরকার বিদেশী বিনিয়োগকে উত্সাহিত করার জন্য সাম্প্রতিক উদ্যোগ এবং কমে ট্যাক্স সুবিধাণ্ডলি সহ উত্সাহ প্রদানের জন্য নানান রকম উৎসাহ বেঞ্জক প্রোগ্রাম নেওয়া হয়েছে।
সভায় বক্তারা বলেন, বাংলাদেশ এখন উন্নয়নশীল দেশ। ব্যবসায়ীদের জন্য বাংলাদেশে অপার সম্ভাবনা সৃষ্টি হচ্ছে। ব্যবসার জন্য চেয়ে অনেক বেশি নিরাপদস্থল। বাংলাদেশের আরো বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জনে প্রবসাীদের এগিয়ে আসতে হবে। দেশের বিভিন্নখাতে বিনোয়গ করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে প্রবাসীরা। এছাড়াও সেমিনারে দেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে নানা সম্ভাবনা ও সুযোগ সুবধািসমূহ তুলে ধরা হয়।সভায় উপস্থিত সকলে কানাডা-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মাইনুল আলম খান ও নির্বাহী সহ-সভাপতি আরিফ রহমানকে এ রকম ণ্ডরুত্ববহ আয়োজনের জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।