অফিস-পাবলিক টয়লেটে ঝিমুনির দিন শেষ!

অনেক সময় অফিসের শৌচালয়ে কমোড বসে কর্মীরা প্রয়োজনের থেকে বেশি সময় কাটিয়ে দেন বলে অভিযোগ। অনেকের আবার ঝিমুনিও এসে যায়। ফলে আরও বেশি সময় লেগে যায়। এখন থেকে সেই সুযোগ হারাবেন ‘ফাঁকিবাজ’ কর্মীরা। কারণ এমন এক কমোড তৈরি হয়েছে যাতে বেশিক্ষণ বসে থাকা যায় না।

ব্রিটেনের স্ট্যান্ডার্ড টয়লেট নামে একটি সংস্থা তৈরি করেছে এই কমোড। এটি মূলত অফিস ও পাবলিক টয়লেটে ব্যবহারের জন্য তৈরি করা হয়েছে। টয়লেটটির নকশা তৈরি করেছেন মহাবীর গিল নামে এক ভারতীয়।

মহাবীর জানিয়েছেন, অনেক সময় পাবলিক টয়লেটের বাইরে দীর্ঘক্ষণ লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। ভিতরে যিনি রয়েছেন, তিনি হয়তো সেখানে ঘুমিয়ে পড়েছেন। আর বাইরে লাইন লম্বা হয়েই চলেছে। এই সমস্যা রেল স্টেশন, বাস স্ট্যান্ড, অফিস-সহ সব পাবলিক টয়লেটেই দেখা যায়। অনেকে আবার অফিস ফাঁকি দিতে টয়লেটে ঢুকে কিছু ক্ষণ ঝিমিয়ে নেন। তারই সমাধান ভাবতে ভাবতে মাথায় আসে, এমন একটি কমোড বানানোর কথা, যাতে বেশিক্ষণ আরাম করে বসে না থাকা যায়।

মহাবীর যে কমোডটি ডিজাইন করেছেন, সেটি পিছন থেকে সামনের দিকে ১৩ ডিগ্রি ঢালু। পরীক্ষায় দেখা গিয়েছে, এই কমোডে ১৫ মিনিটের বেশি বসে থাকলে পা ব্যথা করবে। মহাবীর জানিয়েছেন, তাঁরা সব পাবলিক টয়লেটে এই কমোড ব্যবহারের আবেদন করবেন।