এক নারীকে স্ত্রী দাবি করে ২ যুবকের মারামারি!

বাবা-মা পছন্দ করে জুয়েল রানার সাথে মেয়ের বিয়ে দিয়েছিলেন। তবে জুয়েলকে পছন্দ হয়নি মেয়ের। তাই বিয়ের একমাস পেরোতেই বাড়ি ফিরে আসেন তিনি।

এরপর কাউকে কিছু না জানিয়ে নিজের পছন্দের যুবক কাজল মিয়াকে নিজে নিজেই বিয়ে করে ফেলেন এই নারী। দ্বিতীয় বিয়ের আগে প্রথম স্বামীকে তালাকও দেননি তিনি।

আর এই নারীকে নিজের স্ত্রী দাবি করে মারামারিতে লিপ্ত হয়েছেন জুয়েল ও কাজল।

২২ নভেম্বর, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বগুড়ার ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বরে এ ঘটনা ঘটে। অষ্টাদশী ওই নারীর স্বামী বলে দাবি করা দুই যুবক হলেন- উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের নবীনগর গ্রামের আলমগীর হোসেনের ছেলে জুয়েল রানা (২৬) ও একই এলাকার বিলচাপড়ি গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে কাজল মিয়া (২২)।

ধুনট থানার উপ-সহকারী পরিদর্শক (এএসআই) আব্দুল জাব্বার বলেন, স্বামী দাবি করে মারপিট করায় দুই যুবক ও এক নারীকে থানা হেফাজত রাখা হয়েছে। তিনটি পরিবারকেই থানায় ডাকা হয়েছে। তারা থানায় আসার পর আলোচনা করে এ বিষয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।