পাইলটও ভুয়া!

স্টিভেন স্পিলবার্গ পরিচালিত ‘ক্যাচ মি ইফ ইউ ক্যান’ সিনেমাটি যারা দেখেছেন তারা জানেন কেমন করে ফ্রাঙ্ক আবাগনালে জুনিয়রের নাম ভূমিকায় লিওনার্দো ডিক্যাপরিও বাঘা বাঘা নিরাপত্তা কর্মীদের চোখ এড়িয়ে যা খুশি তাই করে বেড়াচ্ছেন। সিনেমাটি তৈরি হয়েছিলো সত্য ঘটনার ওপর ভিত্তি করে। নিজেকে তেমনি হয়তো ভেবেছিলেন ভারতীয় পর্যটক রাজন মাহবুবানি।

৪৮ বছর বয়সী সেই ব্যক্তি জার্মান এয়ারলাইনার লুফথানসার পাইলটের পোশাক পড়ে নিজেকে পাইলট পরিচয় দেন। সঙ্গে রাখেন পাইলটের ভুয়া পরিচয়পত্রও।

তার এই পোশাক ও পরিচয় বিমানবন্দরের অনেককে বোকা বানালেও শেষ পর্যন্ত তাকে আটক করে দিল্লির ইন্দিরা গান্ধি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নিরাপত্তা কর্মীরা।

পুলিশের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, লুফথানসার পাইলটের পোশাকে সেজে রাজন গত ২১ নভেম্বর এয়ার এশিয়ার একটি ফ্লাইটে দিল্লি থেকে কলকাতায় আসার চেষ্টা করছিলেন। সেসময় তার কাছে পাইলটের ভুয়া পরিচয়পত্রও ছিলো।

দিল্লির বিমানবন্দরের বহির্গমন পথ ধরে এয়ার এশিয়ার উড়োজাহাজের দিকে এগিয়ে যাওয়ার সময় রাজনকে সন্দেহ করেন নিরাপত্তারক্ষীরা। বিমানবন্দরের উপ-কমিশনার সঞ্জয় ভাটিয়া সিএনএন’কে বলেন, “লুফথানসার এক কর্মী বিমানবন্দরের নিরাপত্তারক্ষীদের সতর্ক করে দিয়ে বলেন যে এক যাত্রী তাদের এয়ারলাইন্সের ক্যাপ্টেনের পোশাক পড়ে রয়েছেন। তার আচরণ সন্দেহজনক।”

এর আগে এয়ার এশিয়ার এক কর্মী লুফথানসায় ফোন দিয়ে বলেন যে তাদের এয়ারলাইন্সে এক যাত্রী রয়েছেন যার গায়ে লুফথানসার পাইলটের পোশাক। এয়ার এশিয়ার পক্ষ থেকে সেই ব্যক্তির প্রকৃত পরিচয় জানতে চাওয়া হলে উঠে আসে আসল ঘটনা।

পুলিশ জানায়, দিল্লির অধিবাসী রাজন লুফথানসার পাইলটের পোশাক পড়ে ও ভুয়া পরিচয়পত্র বহন করে তিনি মধ্যে-মধ্যে বাড়তি সুবিধা নেওয়া চেষ্টা করতেন।